সুলতান মুহাম্মাদ আল ফাতিহ এর ব্যবসায়ীরা

Muslims hugging each other

ইসলামের স্বর্ণযুগের কাহিনী এটা, মুসলমানেরা একের পর এক দেশ দখল করে আল্লাহর শাসন কায়েম করে চলেছে। তখনকার মুসলিম সাম্রাজ্যের নেতৃত্বে ছিল অটোমানেরা, আর অটোমান সাম্রাজ্যের সুলতান ছিলেন মুহাম্মাদ আল ফাতিহ (English: Mehmed the Conqueror)। সুলতান মুহাম্মাদ আল ফাতিহ প্ল্যান করলেন যে তিনি দখল করে নেবেন তৎকালীন পৃথিবীর সবচাইতে উন্নত নগরী – তুরস্কের কন্সট্যান্টিনোপল (বর্তমান ইস্তাম্বুল), যা তখন ছিল বাইজেন্টাইন সাম্রাজ্যের দখলে। যুদ্ধ শুরুর আগে তিনি চিন্তা করলেন যে, আগে আমি পরীক্ষা করে দেখি আমার সাম্রাজ্যের মুসলিমদের মধ্যে ঈমান ও সততা কেমন। তাঁর চিন্তা-ভাবনা আমাদের চিন্তা-ভাবনার থেকে অনেক আলাদা ছিল। তিনি মনে-প্রাণে বিশ্বাস করতেন যে, বিজয় আল্লাহর তরফ থেকে আসে। কাজেই মুসলিমদের মধ্যে যদি ঈমান ও আল্লাহর ভয়ই না থাকে, তাহলে বিজয় ছিনিয়ে আনা সম্ভব হবে না ।

সাধারণ মানুষদের হাল-চাল পরীক্ষা করার জন্য সুলতান মুহাম্মাদ আল ফাতিহ ছদ্মবেশে বাজারে গেলেন। বাজারে যেয়ে তিনি এক বিক্রেতাকে বললেন: আমি তোমার থেকে পনির, দুধ আর মধু কিনতে চাই। বিক্রেতা বলল: তুমি আমার থেকে পনির কিনো, কিন্তু আমি তোমার কাছে দুধ আর মধু বিক্রি করব না। কারণ, আমি আজকে আমার চলার জন্য যথেষ্ট পরিমাণ বিক্রি করে ফেলেছি। কিন্তু, আমার অমুক বিক্রেতা ভাই আজ খুব বেশী বিক্রি করতে পারে নাই। তুমি তার কাছ থেকে দুধ আর মধু কিনে নাও। এই বলে সে অন্য এক বিক্রেতাকে দেখিয়ে দিলো।

সুলতান মুহাম্মাদ আল ফাতিহ প্রথম বিক্রেতার থেকে পনির কিনে নিয়ে দ্বিতীয় বিক্রেতাকে গিয়ে বললেন: আমি তোমার থেকে দুধ আর মধু কিনতে চাই। দ্বিতীয় বিক্রেতা বলল: তুমি আমার থেকে দুধ কিনো, কিন্তু আমি তোমার কাছে মধু বিক্রি করব না। কারণ, আমি আজকে আমার চলার জন্য যথেষ্ট পরিমাণ বিক্রি করে ফেলেছি। কিন্তু, আমার অমুক বিক্রেতা ভাই আজ খুব বেশী বিক্রি করতে পারে নাই। তুমি তার কাছ থেকে মধু কিনে নাও। এই বলে সে তৃতীয় আরেক বিক্রেতাকে দেখিয়ে দিলো।

সুলতান মুহাম্মাদ আল ফাতিহ তৃতীয় বিক্রেতা থেকে মধু কিনলেন আর উচ্ছাসী কন্ঠে বলে উঠলেন: সুবহান আল্লাহ! আমার সাম্রাজ্যের মুসলিমদের সততা আর ভ্রাতৃত্ববোধ যদি এরকম দৃঢ় হয় তো শুধু কন্সট্যান্টিনোপল নয় বরং আমরা পুরো বিশ্বকে জয় করতে পারব!

সূত্র:  The Great Islamic Empire by Ustadh Musa Cerantonio

মন্তব্য করুন

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / পরিবর্তন )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / পরিবর্তন )

Connecting to %s